Posts

Showing posts from July, 2017
Image
এ ডেথ্ ইন দ্য গান্জ.......
কঙ্কনা সেনশর্মা-র প্রথম পরিচালিত ছবি। পৃথিবী-র যে প্রান্তের মানুষ কঙ্কনা-কে চেনেন না (if any).....সত্যি বলছি বিশ্বাস করানো মুশকিল ! কঙ্কনাকে একবার প্রশ্ন করা হয়েছিল, ''কোন বিখ্যাত ব্যক্তিকে তিনি ইতিহাসের পাতা থেকে ফিরিয়ে আনতে চাইবেন?" ....উত্তরটা কঠিন হলেও ওর জবাব ছিল অনবদ্য.....''সত্যজিত রায়"। আর সত্যজিত রায় যদি সত্যি ফিরে আসতেন কঙ্কনা নিঃসন্দেহে একটা বড় পিঠ-চাপড়ানি প্রত্যাশা করতে পারতেন, ''অরণ্যের দিনরাত্রি''-র সেই স্রষ্টার কাছ থেকে। ঋতুপর্ণ পরবর্তী প্রজন্মের দুঁদে পরিচালকদের বৃত্তে একলাফেই উঠে এলেন আপনি।ঘাড়ের কাছে আপনার ফেলা নিঃশ্বাস নিঃসন্দেহে অনুভব করছেন সৃজিত, কৌশিক প্রমুখেরা। A Death in the Gunj...বর্ষশেষের এক ছুটির গল্প। তাতেও আবার মৃত্যুর নীলচে কালো-রঙ!! মৃত্যুর মুখে দাঁড়িয়েই ছবির যাত্রা শুরু..... ম্যাকলাক্সিগঞ্জের মর্গ থেকে নীল অ্যাম্বাসাডার-র ডিকিতে...এক মৃতদেহকে ঢোকানোর সমস্যা নিয়ে। বাকিটুকু ফ্লাশব্যাক। ১, ২, করে ৭ টা দিন পিছিয়ে গিয়ে.... কি কি হয়েছিল বক্সি পরিবারে সেই ছুটির অবসরে । নন্দন বক্সি তার স্ত্রী বন…
Image
Moviekhor-মুভিখোর with Chandan Roy.26 June at 09:25 ·  Champ ছবিটি দেখিতে বসিয়া প্রথমে হতাশ, পরে ক্ষুব্ধ ও আরো পরে বেদনায় দীর্ণ হইলাম। 
রাজ চক্রবর্তী কেএই ছবির জন্য দশকের জঘন্যতম ছবির পুরস্কার প্রাপক করাই যায়। ছবিটি আদ্যোপান্ত বাজে। দেব যদিও শরীরটিকে বেশ সুঠাম বানাইয়াছেন, কিন্ত তাহাতে শেষ রক্ষা হয় নাই। চিরন্জিত কেবল আকর্ষণীয় এবং অবশ্যই রুক্মিনী মৈত্র । দখিনাা বতাসের মতো ঝকঝকে এক ষোড়ষী যৌবনা এই রুক্মিনী । যেন টলিউডের শ্যারোন স্টোন। জিৎ গাঙ্গুলীর সুরে প্রতিটা ট্রাক মনেে দাগ কাটিবে। তবু কেবল একটা দুর্বল চিত্রনাট্য কি করিয়া একটা সিনেমার ১২টা বাজাইতে পারে জানিতে হইলে অবশ্যই Champ দেখিয়া আসুন।আর সঙ্গে মাথাধরার ঔষধ নিতে ভুলিবেন না।
লেখক - চন্দন রায়
Image
SHAB.....A WONDERFUL MOVIE BUT FOR THE SELECTED AUDIENCE !!! Anticlock Films নিবেদিত এবং WSG Pictures and Surya Entertainment প্রযোজিত Onir-র ছবি Shab. New York Indian Film Society তে এ ছবি প্রদর্শিত হয়। যেসব দর্শকের দৃষ্টিভঙ্গীর মধ্যে আন্তর্জাতিকতা আছে, Shab নিঃসন্দেহে তাদের কাছে একটা প্রাপ্তি। ছবির বিষয়বস্তর মধ্যে রয়েছে স্বপ্নপূরণ-র এক গল্প। কিভাবে প্রত্যাশার ডানায় আগুন লাগে সেই স্বপ্নপূরণে। ঋতুচক্রের মত পরিবর্তন হয়ে যায় সেই স্বপ্নপূরণে সম্পর্কের মাত্রা। খুব সূক্ষ্ন ভাবে সেই জটিল সম্পর্কের জালকে সেলুলয়েডে বিস্তার করেছেন Onir. তাতে love, sexuality, power, possession, এক এক করে তাদের রং বদল করেছে । যারা এসব প্রভেদ-জটিলতার মধ্যে ঢুকতে অপারগ, তারাও আনন্দ পাবেন অপূর্ব sound track শুনে বা দৃশ্যরচনার পারদর্শিতায়। একবিংশ শতাব্দীর দ্বিতীয় দশকেও তবু multiplex থেকে cinema দেখে বেরোনোর সময় বলতে শুনি.....''কি সব gay-tay-দের নিয়ে cinema !!! একদম ভালো লাগেনা। "
অর্পিতা চট্টোপধ্যায়ের ভাষাতেই বলি, এইসব জন্মমূর্খেরা যারা পোশাকে আশাকে কেবল আন্তর্জাতিক তারা বরঞ্চ গৃহরুদ্ধ হয়েই নিজেদের অজ্ঞতা…